অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরা শহরে ময়ূর নিয়ে নগরবাসী বিভক্ত

ময়ূর

ময়ূরের সৌন্দর্যে প্রায় সবাই বিমোহিত হয়ে থাকে। তবে এই পাখি নিয়ে বিপত্তি দেখা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরা শহরে। ময়ূর মুক্তভাবে ঘুরে বেড়াবে নাকি ফাঁদ পেতে ধরে মেরে ফেলা হবে—এ নিয়ে বিভক্ত হয়ে পড়েছে শহরটির বাসিন্দারা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি ক্যানবেরা শহরে ময়ূরের সংখ্যা  অনেক বেড়েছে। তাঁরা শহরের সড়কে স্বাধীনভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছে। যখন-তখন ঢুকে পড়ছে বসতবাড়িতে। এই পাখির ডাকে, বিশেষ করে ডিম পাড়ার মৌসুমে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে নগরবাসী। তা ছাড়া লোকজনের শস্য ও সবজিও খেয়ে ফেলছে। আর বড় সড়কগুলোতে দুর্ঘটনা এড়াতে গাড়িচালকদের প্রায়ই বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। এসব বিবেচনায় নগর কর্তৃপক্ষ একটি আইন প্রস্তাব করেছে। যাতে বছরে অন্তত একবার ফাঁদ পাতা কর্মসূচি নেওয়া হবে, যেন ময়ূরের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। প্রস্তাবিত এই আইনের পক্ষে সমর্থনের অভাব নেই।

Loading...

তবে বাদ সেধেছে নগরবাসীর আরেকটি অংশ। তাদের বক্তব্য, এই পাখিরাও এ শহরের বাসিন্দা, তাদের মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত হবে নির্মম ও অমানবিক। ময়ূরকে সৌভাগ্যের প্রতীক বলেও মনে করে অনেকে। কারো কারো যুক্তি, বাড়ির চারপাশে বা সৈকতে ঘুরে বেড়ানোর সময় পাশে ময়ূর হাঁটছে—এটি অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। এখন তারা সেটির বিকল্প কিছু চায় না। সূত্র : বিবিসি।

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Loading...