ভারতে ১২ বছরের কম বয়সী শিশু ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

শিশু ধর্ষণ

ভারতে ১২ বছরের কম বয়সী শিশু ধর্ষণের শিকার হলে অপরাধীর শাস্তি হবে মৃত্যুদণ্ড। শনিবার দেশটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় এ-সংক্রান্ত জরুরি নির্বাহী আদেশ সই হয়েছে। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়।

ভারতে ধর্ষণের বিরুদ্ধে চলমান বিভিন্ন নাগরিক সংগঠনের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে শিশু ধর্ষণকারীর এই শাস্তির ব্যবস্থা করা হলো। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পাঁচ দিনের বিদেশ সফর শেষে দেশে ফেরার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মন্ত্রিসভায় এই নির্বাহী আদেশ স্বাক্ষরিত হলো।

Loading...

নারী ও শিশু উন্নয়নবিষয়ক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মানেকা গান্ধী গত সপ্তাহে শিশু ধর্ষণকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে এমন ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ঘোষণা করেন। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ওই প্রস্তাব পাঠানো হয় মন্ত্রিসভায়।

ভারতে এতদিন শিশু ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং সর্বনিম্ন শাস্তি ছিল সাত বছরের কারাদণ্ড।

মোদি সরকার চলতি বছরের শুরু পর্যন্ত শাস্তি বাড়ানোর বিপক্ষে ছিল। জানুয়ারিতে কেন্দ্রীয় আইন কর্মকর্তা সুপ্রিম কোর্টকে জানিয়েছিলেন, ‘মৃত্যুদণ্ডই সবকিছুর জবাব হতে পারে না।’

সম্প্রতি ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যা এবং উত্তর প্রদেশে বিধায়কের বিরুদ্ধে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠার পর ধর্ষণকারীদের কঠোর শাস্তির দাবিতে উত্তাল হয়ে ওঠে ভারত।

ভারতে অবশ্য জরুরি নির্বাহী আদেশে শাস্তি বৃদ্ধি নতুন কোনো ঘটনা নয়। এর আগেও বিভিন্ন ক্ষেত্রে মন্ত্রিসভা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

 

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Loading...