মেসে চেতনানাশক খাইয়ে গনধর্ষণ

ধর্ষণ

বরিশাল নগরের কাশীপুর এলাকায় এক ছাত্রী (১৮) গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিন বখাটেকে আটক করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে নগরের কলেজ রোডের একটি মেসে ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ওই মেস গিয়ে অচেতন অবস্থায় থাকা ওই কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করে।

Loading...

আটক তিনজন হলেন বিএম কলেজ-সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা রাব্বী মল্লিক (২৫) ও তাঁর বন্ধু বিএম কলেজের মার্কেটিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সাইফুল ইসলাম ওরফে সজীব (২৪) ও মো. মানিক (২৪)।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকালে দ্বাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী পরীক্ষার নোট নেওয়ার জন্য বিএম কলেজের সামনে তাঁর বন্ধু ইমতিয়াজের মেসে যান। তখন রাব্বী ও মানিক তাঁকে জোর করে সেখান থেকে কলেজ রোডের ওই মেসে নিয়ে যান। সেখানে চেতনানাশক কিছু পান করিয়ে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন রাব্বী মল্লিক। এরপর রাব্বী পালিয়ে যাওয়ার পর ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন তাঁর বন্ধু সাইফুল ইসলাম। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই ছাত্রীকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে এবং সাইফুলকে আটক করে। এরপর মানিককে নগরের বিসিক এলাকা থেকে এবং বিএম কলেজের সামনে থেকে রাব্বিকে আটক করে পুলিশ।

বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ্ মো. আওলাদ হোসেন শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা এ পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করেছি। তবে এ ঘটনায় কয়জন জড়িত, তা ভিকটিমের বক্তব্য না শুনে নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। ভিকটিম এখনো পুরোপুরি সুস্থ নন। আমরা ভিকটিমের জবানবন্দি শোনার পর পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেব।’

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Loading...